প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে শিক্ষকসহ আটক ১৩

0
74

নাটোরে চলমান এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার রসায়ন বিজ্ঞানের প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে শিক্ষক-পরীক্ষার্থীসহ ১৩ জনকে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় তাদের কাছে থাকা মোবাইল ফোনে ইমো, ফেসবুক ও ম্যাসেঞ্জারে রসায়ন বিষয়ে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র পাওয়া যায়।

আজ বৃহস্পতিবার লালপুর উপজেলার কদিমচিলান ইউনিয়নের চাঁদপুর-১ হাইস্কুল কেন্দ্র থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটক পরীক্ষার্থীরা হলো- লালপুর উপজেলার কলসনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের তহমিনা খাতুন, আছিয়া খাতুন, জান্নাতুন ফেরদৌস, মোছা. নুরে জান্নাত, সুমি খাতুন, মোছা. রত্না খাতুন, মোছা. নাসরিন জাহান, মোছা. মাসুমা খাতুন, জিসান গাজী, সৈকত সরকার, এলাকাবাসী হাসান আলী।

এছাড়া কলসনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা জান্নাতুন ফেরদৌস ও তার স্বামী সোহেল আহমেদ।

র‌্যাব-৫ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর শিবলী মোস্তফা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারেন লালপুর উপজেলার চাঁদপুর-১ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রশ্নপত্র ফাঁসের একটি চক্র সক্রিয়ভাবে কাজ করছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাবের বিশেষ দল বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই ওই কেন্দ্রের আশপাশে অবস্থান নেয়।

পরীক্ষার শুরুর এক ঘণ্টা আগে পরীক্ষা কেন্দ্রের চারপাশে ওই পরীক্ষার্থীদের সন্দেহজনক গতিবিধি লক্ষ্য করেন তারা। এ সময় ওই ১০ পরীক্ষার্থীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়।

এক পর্যায়ে তাদের কাছে থাকা মোবাইল ফোনে ইমো, ফেসবুক ও ম্যাসেঞ্জারে রসায়ন বিষয়ে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র পাওয়া যায়।

পরে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানো হলে তিনি ঘটনাস্থলে এসে পরীক্ষার মূল প্রশ্নপত্রের সঙ্গে মোবাইল ফোনে পাওয়া প্রশ্নপত্রের মিল খুঁজে পান। এ ঘটনায় ওই ১০ পরীক্ষার্থী এবং একজন সহকারী শিক্ষিকাসহ আরো তিন ব্যাক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

লালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম জানান, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে।