ডিজিটাল যশোর গুজবের জন্য না”

0
211

রওশন ইকবাল শাহী : ১৯৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা যশোর, তথ্য প্রযুক্তি বিপ্লবের এই বিশ্বজগৎ এ ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল জেলা যশোর। স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের এই বাংলাদেশ দিয়েছেন, তার সুযোগ্য কন্যা দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে নিয়ে গেছেন বিশ্বে এক অনন্য উচ্চতায়। দেশ আজ উন্নত সোনার বাংলার দিকে এগিয়ে চলেছে। দেশরত্ন শেখ হাসিনা যশোরবাসী তথা দক্ষিণ-পশ্চিম এই জনপদের মানুষকে উপহার দিয়েছেন অনেক কিছুই তার মধ্যে অন্যতম ” শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক ” ৩০৫ কোটি টাকা ব্যায়ে ১০ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং তে উদ্ভোধন করেন দেশরত্ন শেখ হাসিনা । ০৩ টি জাপানি কোম্পানি সহ দেশি-বিদেশী ৫৫ টি কোম্পানির সাথে চুক্তি হয়েছে ইতিমধ্যে। এখানেই উদিত হয়েছে যশোরের মানুষের সম্ভাবনার সূর্য।

হাজার হাজর মানুষের কর্ম-সংস্থান এর সাথে সাথে ২০২১ সালের মধ্যে তথ্য প্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশের রপ্তানি আয় ০৫ বিলিয়ন এর লক্ষ্যমাত্রা পূরণে বিশেষ ভুমিকা রাখবে যশোরেই এই আইটি পার্ক। সারাদেশে আজ ৪০ হাজার ডিজিটাল ক্লাসরুম, ৫২৭৫ টি ডিজিটাল সেন্টার, বিভিন্ন স্কুল-কলেজে ৬ হাজারটি শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব ইতিমধ্যে স্থাপন করা হয়েছে। প্রক্রিয়াধীন আছে ১৫ হাজার ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন, কৃষকদের জন্য ১০০ টি গ্রামকে স্মার্ট গ্রামে পরিণত করা, দুই (০২) লাখ গ্রামীণ স্কুল,স্বাস্থ্য কেন্দ্র এবং সরকারি কার্যালয়ে উচ্চ গতির ইন্টারনেট।

ডিজিটাল যশোরের মানুষ এখন অনেক বেশী সচেতন, সবাই সত্যকে প্রাধান্য দিয়ে ভালো কিছুর সাথে থাকে সবসময়। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, যশোর জেলা শাখা পরিবার সবসময় কাজ করে যাচ্ছে ডিজিটাল যশোর এর তরুণ প্রজন্মকে এই ডিজিটাল প্লাটফর্ম এ সম্পৃক্ত করে সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে এগিয়ে চলেছে। ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, পৌরসভা, উপজেলা, জেলা পর্যায়ে সকলকে সম্পৃক্ত করে যশোর জেলা ছাত্রলীগ পরিবার কাজ করে যাচ্ছে দেশরত্ন শেখ হাসিনা’র উন্নত বাংলাদেশ এর সকল উন্নয়নের কার্যক্রম প্রচার এবং প্রসারের জন্য ।

আমরা যখন প্রগতির জন্য কাজ করছি, বিএনপি-জামাত জোট তখন গুজব ছড়িয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করে বিশৃঙ্খলা করে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরির জন্য সব সময় ষড়যন্ত্র করে চলেছে। বিগত সময়ে আইটি ডিপার্টমেন্টে গ্রুপ সহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ গ্রুপ ও বিভিন্ন সাইবার গ্রুপ এবং অফলাইনে ” গুজবকে না বলুন ” শিরোনামে সচেতনতা মূলক প্রচারপত্র নিয়ে সকল মানুষের মাঝে সত্য তুলে ধরার জন্য অগ্রণী ভুমিকা রেখে চলেছে যশোর জেলা ছাত্রলীগ পরিবার এর প্রত্যেকটি ইউনিট।

তথ্য প্রযুক্তির এই সেবা দেশরত্ন শেখ হাসিনা ও তার সুযোগ্য পুত্র প্রযুক্তিবিদ সজীব ওয়াজেদ জয় এর অবদানে আমরা পেয়েছি। এটাকে ব্যবহার করে স্বাধীনতা বিরোধীদের কোন ষড়যন্ত্র যশোরে হতে দেওয়া হবে না। ডিজিটাল যশোর শান্তি-স্বস্তি ও সমৃদ্ধির জন্য হবে ডিজিটাল যশোরে কোন গুজব চলবে না তার জন্য দৃড় প্রতিজ্ঞ যশোর জেলা ছাত্রলীগ পরিবারের প্রত্যেকটি সদস্য..

রওশন ইকবাল শাহী, সভাপতি, যশোর জেলা ছাত্রলীগ।