সাতক্ষীরায় গণপিটুনিতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা নিহত

0
105

সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান কে এম মোশাররফ হোসেন হত্যা মামলার প্রধান আসামি স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবদুল জলিল গাইন গণপিটুনিতে নিহত হয়েছেন।

গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পুলিশের হাত থেকে ছিনিয়ে নিয়ে বিক্ষুব্ধ জনতা তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। নিহত আবদুল জলিল গাইন কৃষ্ণনগর ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ছিলেন।

কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান হাফিজুর রহমান বলেন, জেলা জাতীয় পার্টির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও তিনবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান মোশাররফ হত্যা মামলার প্রধান আসামি কৃষ্ণনগর ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আবদুল জলিল গাইনকে গত শুক্রবার রাতে গাজীপুরের কালিয়াকৈর থেকে গ্রেফতার করা হয়।

পরে তাকে সাতক্ষীরায় আনা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে জলিলকে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারের জন্য কৃষ্ণনগরে যাওয়া মাত্র হাজার হাজার লোক এসে জোর করে তাকে ছিনিয়ে নেয়। ক্ষুব্ধ জনতা তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কয়েকটি ফাঁকা গুলি করে।

ওসি জানান, চেয়ারম্যান মোশাররফকে যেখানে হত্যা করা হয়েছিল সেখানেই তার হত্যা মামলার প্রধান আসামি জলিলকে পিটুনি দিয়ে হত্যা করে লোকজন।

উল্লেখ্য, গত ৮ সেপ্টেম্বর রাতে কৃষ্ণনগর বাজারে যুবলীগ কার্যালয়ে বসে থাকাকালে চেয়ারম্যান কেএম মোশাররফ হোসেনকে সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করে। এ ঘটনায় একই ইউপির সদস্য আবদুল জলিল গাইনকে প্রধান আসামি করে মামলা করেন নিহতের মেয়ে সাথিয়া পারভিন।