কৃষককে ধানের ন্যায্যমূল্য দিন: অর্থমন্ত্রীকে নাসিম

0
65

প্রয়োজনে ভর্তুকি দিয়ে বেশি দামে ধান কিনে হলেও কৃষককে ধানের ন্যায্যমূল্য দিতে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ও সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম।

তিনি বলেছেন, ‘সরকার ভর্তুকি দিয়ে সার ও বীজ কম মূল্যে কৃষকদের মাঝে সরবরাহ করছে। কিন্তু এখন ধান উৎপাদনে কৃষকের মজুরি খরচ অনেক বেশি। তাছাড়া মধ্যসত্ত্বভোগীরা ধানের মূল্যের সুবিধা বেশি ভোগ করছে। তাই কৃষকরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেজন্য অর্থমন্ত্রীকে বলবো, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরামর্শে কৃষিমন্ত্রী ও খাদ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে প্রয়োজনে ভর্তুকি দিয়ে হলেও কৃষককে ধানের ন্যায্যমূল্য দেয়ার ব্যবস্থা করুন।’

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে গণআজাদী লীগের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল-পূর্ব আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির এ সভাপতি বলেন, ‘বাংলাদেশ কৃষক প্রধান ও কৃষিনির্ভর দেশ। যখন দেখি কৃষকরা ধানের ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত হয় তখন কষ্ট লাগে। সিয়াম সাধনার মাস পবিত্র রমজান মাসে যারা খাদ্যে ভেজাল দেয়, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করে তারা জনগণের দুশমন। এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে মোহাম্মদ নাসিম আরও বলেন, ‘সেদিন দূর্জয়ের প্রতীক হিসেবে এক সমুদ্র ব্যথা-বেদনা নিয়ে শেখ হাসিনা দেশে এসেছিলেন। বাংলাদেশে গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে, বঙ্গবন্ধুর ও জাতীয় চার নেতা হত্যার বিচার এবং অসাম্প্রদায়িক দেশ গড়ার জন্যই তিনি দেশে ফিরে এসেছিলেন। শেখ হাসিনা অনেক লড়াই-সংগ্রাম করে দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন জঙ্গিমুক্ত শান্তিপ্রিয় দেশ। দেশের এই শান্তি ও অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে হবে।’

গণআজাধী লীগের সভাপতি এস কে শিকদারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তৃতা করেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) সভাপতি হাসানুল হক ইনু, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, জাতীয় পার্টির (জেপি) প্রেসিডিয়াম সদস্য এজাজ আহমেদ মুক্তা ও ন্যাপ নেতা ইসমাইল হোসেন প্রমুখ।