মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক সম্মানী ভাতা ১২ হাজার হচ্ছে

0
57

সরকার  আগামী বাজেটে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক সম্মানী ভাতা ১২ হাজার টাকা করার প্রস্তাব করছে সরকার। এখন ১০ হাজার টাকা করে সম্মানী ভাতা পান মুক্তিযোদ্ধারা।

আগামী বৃহস্পতিবার সংসদে মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক সম্মানী ভাতা ২ হাজার টাকা বাড়ানোর এ প্রস্তাব তুলে ধরা হবে। তবে নতুন অর্থবছরে তাঁদের অন্যান্য ভাতা অপরিবর্তিত থাকবে।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা আজ মঙ্গলবার বাসসকে জানান, ‘মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় চলতি অর্থবছরে এ লক্ষ্যে বরাদ্দ করা ৩ হাজার ৩০৫ কোটি টাকার স্থলে আসন্ন বাজেটে ৩ হাজার ৪৮৫ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করবে।’ তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের সরকার তার প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান ও শ্রদ্ধার নিদর্শনস্বরূপ তাঁদের এই ভাতা চালু করে।

মন্ত্রণালয় প্রদত্ত তথ্যে আরও জানা যায়, ১ জুলাই থেকে শুরু হওয়া নতুন অর্থবছরে মুক্তিযোদ্ধাদের অন্যান্য উৎসব ভাতা অপরিবর্তিত রাখা হবে।

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য সরকার সম্প্রতি ২ লাখ বীর মুক্তিযোদ্ধাকে প্রতি মাসে ১০ হাজার টাকা ভাতা প্রদান করছে। এ ছাড়া বিবিধ সুবিধা হিসেবে মুক্তিযোদ্ধাদের বিজয় দিবস, ঈদ ও বাংলা নববর্ষে উৎসব ভাতা ও মেট্রোপলিটন এলাকায় বিনা মূল্যে প্রতিদিন ১২৫ লিটার পানি ব্যবহারের সুবিধা দিচ্ছে।

আগামী জাতীয় বাজেটে প্রত্যেক মুক্তিযোদ্ধাকে মাসিক সম্মাননা ১০ হাজার টাকার স্থলে ১২ হাজার টাকা করা হবে। তবে প্রতি ঈদে ১০ হাজার এবং বৈশাখী বোনাস হিসেবে ২ হাজার টাকা প্রদান করা হবে। এ ছাড়া সরকার আহত মুক্তিযোদ্ধাদের মেডিকেল ভাতা এবং শহীদ ও পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে রেশন প্রদান করছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.