‘স্ত্রী পরকীয়া করে তাই গলা কেটে মেরে ফেলেছি

0
53

‘দীর্ঘদিন যাবৎ স্ত্রী পরকীয়ার সম্পর্কে জড়িয়েছে। কিছুতেই তাকে ফেরানো যাচ্ছে না। তাই তাকে মাঝরাতে পায়ের রগ ও গলা কেটে মেরে ফেলেছি। আমাকে আটক করেন স্যার।’

শুক্রবার ভোর রাত (আনুমানিক সাড়ে ৩টা) বাড়ি থেকে প্রায় ছয় কিলোমিটার দূরে পবার দামকুড়া থানায় হাজি হয়ে পুলিশকে এমন কথাই বললেন শরিফুল ইসলাম রেন্টু। তার বাড়ি রাজশাহীর পবা উপজেলার শিতলাই ইউনিয়নের কলারটিকর গ্রামে। নিহত স্ত্রীর নাম লাবলি বেগম। এই দম্পতির ঘরে রয়েছে দুটি সন্তান।

পুলিশের ভাষ্যমতে, পরকীয়ার কারণে ঐ দম্পতির মধ্যে বিবাদ চলছিল। এর জেরে গত রাতে স্ত্রীকে খুন করে রেন্টু। পরে থানায় এসে পুলিশকে হত্যার কথা জানায়।

সকালে পুলিশ গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে। এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।

রেন্টু একজন নির্মাণ শ্রমিক। কয়েক বছর আগে একই উপজেলার সাইরপুকুর গ্রামের বাবলু মিয়ার মেয়ে লাভলীর সঙ্গে তার বিয়ে হয়।