শিশু তুহিন হত্যা: বাবাসহ তিনজন কারাগারে

0
79

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে পাঁচ বছরের শিশু তুহিন মিয়া খুনের ঘটনায় তার বাবা আব্দুল বাসিরসহ তিন জনকে রিমান্ড শেষে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ৩ দিনের রিমান্ড শেষে তুহিনের বাবা আব্দুল বাছিরকে হাজির করা হয়। সুনামগঞ্জের বিচারিক হাকিম মো. খালেদ মিয়ার আদালত শিশু তুহিনের বাবা আব্দুর বাছিরসহ ৩ জনকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

পুলিশ জানায়, তিন দিনের রিমান্ড শেষে আবদুল বাছির জবানবন্দি দিতে রাজি হওয়ায় বিকেল তিনটায় তাকে আদালতে আনা হয়। পরে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত তিনি আদালতে জবানবন্দি দেন। আবদুল বাছিরের সঙ্গে তার দুই ভাই আবদুল মছব্বির ও জমসেদ আলীও রিমান্ডে ছিলেন। তবে তারা জবানবন্দি দেননি। পরে তিনজনকেই আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও দিরাই থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবু তাহের মোল্লা জানান, আবদুল বাছির আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। তবে আদালতে তিনি কী বলেছেন সেটি আমরা জানি না। পরে তিনজনকেই কারাগারে পাঠানো হয়েছে।এর আগে গত ১৫ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকেলে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যামকান্ত সিনহা তুহিন হত্যায় তুহিনের বাবা আব্দুর বাছির, চাচা আব্দুর মোছাব্বির ও জামশেদ আলীকে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

প্রসঙ্গত, গত রোববার রাত ৩টার দিকে উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের কেজাউড়া গ্রামে তুহিন হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সোমবার ভোরে গাছের সঙ্গে ঝুলানো অবস্থায় শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় তুহিনের পেটে দুটি ধারালো ছুরি বিদ্ধ ছিল। তার পুরো শরীর রক্তাক্ত, কান ও লিঙ্গ কর্তন অবস্থায় ছিল।