সুচিকে দেয়া ‘ফ্রিডম অব দ্য সিটি’ প্রত্যাহার করে নিল স্কটল্যান্ড

0
123

মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর আউং সান সুচিকে প্রদান করা সম্মানসূচক ‘ফ্রিডম অব দ্য সিটি’ সম্মাননা প্রত্যাহারের পক্ষে সর্বসম্মতভাবে ভোট দিয়েছে স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো সিটি কাউন্সিল।

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে সৃষ্ট রোহিঙ্গা শরণার্থী সংকট নিয়ে সুচির প্রতিক্রিয়ায় বিশ্বজুড়ে সমালোচনার ঝড় উঠে। এর পরই সিটি কাউন্সিল এই সিন্ধান্ত নেয়।

বার্মার গণতন্ত্রীপন্থী নেত্রী হিসেবে ২০০৯ সালে সুচিকে এই সম্মাননা দেয় স্কটল্যান্ড। তখন তিনি গৃহবন্দী ছিলেন।

রাখাইনে সহিংসতা ও জাতিগত নিধন শুরু হওয়ার পর গত ২৫ আগস্ট থেকে প্রতিবেশী বাংলাদেশে প্রায় ছয় লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে গিয়েছে।

গ্লাসগো সিটি লর্ড প্রোভোস্ট ইভা বোলান্ডার বলেছেন, রাখাইনে মানবিক সংকট সমাধানে আউং সান সুচির হস্তক্ষেপ চেয়ে আমি ও লিডার, কাউন্সিলর সুসান এইটকিন সম্প্রতি তার কাছে একটি চিঠি লিখেছিলাম। কিন্তু সেটির প্রতিউত্তর ছিল অত্যন্ত হতাশা ও দুঃখজনক। তার সম্মাননা বাতিলের প্রস্তাব ছিল নজিরহীন এবং কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত হালকাভাবে নেয়া হয়নি।

এছাড়া সুচিকে প্রদান করা সম্মানসূচক ডিগ্রি প্রত্যাহারের জন্য গ্লাসগো ইউনিভার্সিটিকে আহ্বান জানানো হয়েছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আমাদের এমন কিছু করার কোনও পরিকল্পনা নেই।

এর আগে যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড সিটি কাউন্সিলের ১৯৯৭ সালে প্রদান করা সম্মাননা ‘ফ্রিডম অব অক্সফোর্ড’ প্রত্যাহার করা হয়। এছাড়া ওই বিশ্ববিদ্যালয়টির সেন্ট হিউজ কলেজে সুচির প্রতিকৃতিও সরিয়ে ফেলা হয়। সূত্র: বিবিসি